1. info@www.prothomdhaka24.com : প্রথম ঢাকা :
রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ০২:২৫ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
গোবিন্দগঞ্জে অটোচালক দুলা মিয়া হত্যার মূল আসামি গ্রেফতার ঈদে চুরির সতর্কতায় ও নিরাপত্তা দিতে ঢাকা কেরানীগঞ্জ পুলিশ । টেকনাফে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের আগুনে পুড়ে ছাই বসত ঘর উখিয়া পালংখালীর জামতলী বাজার হতে র‌্যাবের হাতে অস্ত্র-গুলিসহ এক আরসা সন্ত্রাসী আটক। রাজধানীর মতিঝিল এলাকা হতে আনুমানিক ছয় লক্ষাধিক টাকা মূল্যমানের হেরোইনসহ ০২ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০ জেলার সেরা সম্মাননা পেলেন পানছড়ির থানার ওসি শফিউল আজম ঘোলারচরে বিজিবির অভিযানে নৌকার পাটাতনের নীচ থেকে ৩০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার, আটক-১ মায়ানমারে আভ্যন্তরীন যুদ্ধে ব্যাপক খাদ্যসংকট এপার থেকে পাচার হচ্ছে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রীওপার থেকে আসছে ভোলা জেলার লালমোহন এলাকায় চাঞ্চল্যকর পারভিন বেগম (৩৭) হত্যাকান্ডের পলাতক প্রধান আসামি মোঃ রিপনসহ হত্যাকান্ডে সরাসরি জড়িত ০৩ জনকে কিশোরগঞ্জ জেলার সদর এলাকা হতে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০ বুড়িমারী এক্সপ্রেস বামনডাঙ্গা’য় যাত্রা বিরতির দাবিতে গণ অবস্থান ও মানববন্ধন।

কুড়িগ্রামে উদ্বোধনের পর থেকেই বন্ধ রয়েছে ডিজিটাল সার্ভিস সেন্টার

রফিকুল ইসলাম রফিক
  • প্রকাশিত: সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৭৪ বার পড়া হয়েছে

কুড়িগ্রামের দাসিয়ারছড়ায় ডিজিটাল সার্ভিস অ্যান্ড এমপ্লয়মেন্ট ট্রেনিং সেন্টার (ডি-সেট) কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে নির্মাণ করেছে সরকার। কর্মসংস্হান সৃষ্টির লক্ষ নিয়ে কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার কালিরহাট বাজারের পাশে ২০২১ সালের মার্চে সেন্টারটি উদ্বোধন করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এর পর থেকেই তালাবদ্ধ রয়েছে সেন্টারটি। ফলে দীর্ঘদিন ধরে অবহেলিত মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে ডিজিটাল সেন্টারটি কোনো কাজে আসছে না বলে দাবি এলাকার বাসিন্দাদের।

প্রকল্প সূত্রে জানা গেছে, দাসিয়ারছড়ার তরুণ সমাজের কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে ডিজিটাল সেন্টারটি নির্মাণ করা হয়। ৫৬ লাখ টাকা ব্যয়ে ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে নির্মাণকাজ শুরু হয়েছিল।

এ বিষয়ে কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসক মোঃ সাইদুল আরীফ বলেন, ‘ডিজিটাল সার্ভিস এমপ্লয়মেন্ট সেন্টারটি পরিদর্শন করেছি। সেখানে কিছু সমস্যা আছে। প্রশিক্ষকসহ অন্য জনবল নিয়োগ দিয়ে কার্যক্রম শুরু করা হবে। এটি চালু হলে সেখানকার বেকার সমস্যা সমাধান হবে।’

এবিষয়ে ছিটমহল বিনিময়ের সাবেক নেতা গোলাম মোস্তফা বলেন, ‘আমরা দীর্ঘদিন আন্দোলন করার পর মুক্ত হয়ে পাকা সড়ক, বিদ্যুৎ, চিকিৎসা সুবিধা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, সেতু সবই পেয়েছি। কিন্তু ছিটমহল বিনিময়ের আট বছরে নিজেদের অর্থনৈতিক কোনো উন্নয়ন করতে পারিনি। একমাত্র ডিজিটাল সার্ভিস সেন্টারটি ঘিরে আমরা আশা করেছিলাম, ভালো কিছু হবে। ভেবেছিলাম, আমাদের সন্তানরা এখানে প্রশিক্ষণ নিয়ে রোজগার করতে পারবে। কিন্তু উদ্বোধনের পর দুই বছর ধরে এটি বন্ধ রয়েছে। স্থানীয় প্রশাসনকে বারবার এটি চালুর কথা জানানো হলেও তারা কোনো উদ্যোগ নেয়নি।

ফুলবাড়ী দাসিয়ারছড়ার বাসিন্দা সাহেদ আলী বলেন,সেন্টার উদ্বোধন হওয়ার পর অনেক ভরসা ছিল ছেলে-মেযেদের কর্মসংস্হান হবে কিন্তু না এটি কোন কাজে আসছেনা। এ অবস্হায় সেন্টারটি চালুর জোড়দাবী জানাচ্ছি।

 

রফিকুল ইসলাম রফিক

কুড়িগ্রাম

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট